সারাদেশ

জমি নিয়ে বিরোধ : ছেলের সামনে বাবাকে ছু’রি মে’রে হ’ত্যা

নরসিংদীর রায়পুরা উপজে’লায় জমি-সংক্রান্ত বি’রোধের জেরে প্রতিপক্ষের ছু’রির আ’ঘাতে মো. মানিক মিয়া (৫০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।রোববার (১০ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজে’লার রায়পুরা ইউনিয়নের মাহমুদপুর ঈদগাহসংলগ্ন ব্রিজের ওপর এ ঘটনা ঘটে। নিহত মানিক একই এলাকার মৃ’ত মুনতাজ মিয়ার ছেলে।

এ ঘটনায় সোমবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে নিহতের স্ত্রী জাহেদা বেগম পাঁচজনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ৬-৭ জনকে আ’সামি করে মা’মলা করেছেন। এ মা’মলায় দুজনকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। তারা হলেন মাহমুদপুর গ্রামের ইব্রাহীম ও তার ছেলে মাসুদ।

রায়পুরা উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক লায়লা ইয়াছমিন জানান, রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মানিককে হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। হাসপাতালে আনার আগেই মা’রা যান তিনি।

নিহতের পরিবার জানায়, তিন মাস ধরে জমি-সংক্রান্ত বি’ষয় নিয়ে প্রতিবেশী মো. ইব্রাহীমসহ কয়েকজনের সঙ্গে বি’রোধ দেখা দেয় মানিক মিয়ার। এরই জেরে রোববার রাতে স্থানীয় হাসিমপুর মৌলভীবাজার থেকে ছেলে রাজিবকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে ইব্রাহীম তার লোকজন নিয়ে মানিক ও তার ছেলে রাজিবকে ঘিরে ফেলে।

ওই সময় ইব্রাহীমের ছেলে মাসুদ ছু’রি দিয়ে মানিকের পেটে আ’ঘাত করলে সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে পড়ে যান। ছেলে রাজিব দৌড়ে গিয়ে বাড়ির লোকজনকে খবর দিলে তারা এসে আ’হত অবস্থায় মানিককে রায়পুরা উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে মৃ’ত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

রাজিব বলেন, বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে মাহমুদপুর ব্রিজের ওপর এসে পৌঁছার পর ইব্রাহীম ও তার ছেলে মাসুদ এবং বাদলসহ আটজন লোক আমাদের ঘিরে ফেলে। তখন মাসুদ আমার বাবার পেটে ছু’রি দিয়ে আ’ঘাত করে। অন্ধকার থাকায় ওই সময় তিনজন ছাড়া বাকি লোকদের চিনতে পারিনি।এ ব্যাপারে রায়পুরা থানা পুলিশের এসআই দেব দুলাল বলেন, এ ঘটনায় দুজনকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে। নিহতের ম’রদেহ ম’য়নাত’দন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল ম’র্গে পাঠানো হয়েছে।