- সারাদেশ

নরসিংদীর পলাশে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মহান নেতা সাবেক এমপি কামরুল আশরাফ খান পোটন

মো.শফিকুল ইসলাম(মতি)নরসিংদীর পলাশে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মহান নেতা সাবেক এমপি কামরুল আশরাফ খান পোটন। বাংলাদেশ ফার্টিলাইজার এসোসিয়েশন ( বি এফ এ)এর সম্মানিত সভাপতি জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ( এন বি আর) এর চার চার বার সেরা কর এউার্ট পুরুস্কার প্রাপ্ত বর্তমান উন্নয়নশীল পলাশের রূপকা জননেতা কামরুল আশরাফ খান পোটন।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও নীতির অনুসারিত হয়ে মানুষের কল্যান সাধনের অগ্রগতিতে অগ্রনায়কের ভূমিকায় অবতীর্ণ তিনি রাজনীতির প্রকৃত মূলমন্ত্র এবং আদর্শের প্রতীক হয়ে দুঃসময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নিঃস্বার্থ মানবসেবা ও পলাশের গণমানুষের একমাত্র আস্থা ও ভালোবাসার প্রতীক আস্থা, বিশ্বাস, ভালোবাসা যার প্রকৃষ্ট উদাহরণ পলাশ বাসীর দিন বদলের প্রিয় মানুষ, তিনি আজ পলাশ বাসীর হৃদয়ে বিরাজমান সর্বত্র। সর্বোপরি-বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক আদর্শের একজন দৃঢচেতা সৈনিক।

সাধারণ মানুষের কল্যানের জন্যই তাঁর রাজনীতি! তাঁর রাজনীতিতে গরীব-ধনী বৈষম্য নেই, উঁচু-নীচু নেই, ধর্ম-বণ নেই, মানব সেবাই তাঁর প্রধান কাজ। বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক দর্শনকে আগলে নিয়েই তাঁর পথচলা। সেই দর্শনের জন্যই তিনি জীবনে নানা প্রতিকূলতা পাড়ি দিয়েছেন, শাসক শক্তির অনুসারি হয়েছেন। রক্তচক্ষু উপেক্ষা করেই তিনি মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন অবিরাম।

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে লালন করে। বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরতœ নেত্রী-মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রত্যেকটি নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করে, নরসিংদী ০২ সাবেক সংসদ আলহাজ্ব কামরুল আশরাফ পোটন মহোদয় এর নেতৃত্বে করুনা পাদূর্ভাব এ জীবনের ঝুকি নিয়ে সাধারন মানুষের সেবা করে প্রমান করেছেন যে তিনি পলাশবাসীর গর্ব, পলাশের জনগনের নয়ন মনি, পলাশের অসহায়, সাধারন খেটে খাওয়া মানুষের পকৃত বন্ধু, মানবিক নেতা। পলাশের অনেক ধনী ব্যাক্তি আছে, করুনার পাদূর্ভাব এ তাদের কাওকে পলাশবাসীর পাশে হয়ত এতটা দেখা যায়নি ।

যেখানে সবাই করুনার ভয়ানক থাবায় নিজে শেষ না হওয়ার লরাইয়ে বেচে থাকার জন্য সেচ্ছায় ঘরবন্দী জীবনযাপন করছে। যেই সময়টাতে প্রত্যেকটি মানুষ শুধু নিজেকে নিয়ে ভেবেছে, তখন তিনি ভেবেছেন পলাশবাসীকে নিয়ে করুনাকালীন লকডাউনে তিনি ছিলেন সারাদিন রাস্তায়, অসহায় মানুষের পাশে। খাদ্যসামগ্রী নিয়ে গিয়ে দাড়িয়েছেন পলাশের অসহায়, গরীব, দরিদ্র পরিবারের মানুষের দরজায় । মাক্স, হ্যান্ডস্যানিটাইজার বিতরন, রাস্তায় জীবানুনাশক স্প্রে ছিটানো, খাদ্যসামগ্রী বিতরন, বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী সংঘটন নিয়ে মানবসেবায় কাজ করা, করুনা রোগীর জন্য এম্বুলেন্স ব্যাবস্থা করা, ডাক্তারদের পিপিএ প্রদান, করুনা উপসর্গ নিয়ে কেউ মারা গেলে তার দাফন কাফন এর ব্যাবস্থা করা।

অনলাইন বাজার চালু করা। করুনায় কৃষকরা বিপযস্ত হয়ে ভেংগে পরায় পলাশ উপজেলা ছাত্রলীগ কে ধান কাটার মেশিন রিমার হস্তান্তর করা, করুনা ভাইরাস এ শিক্ষা ব্যাবস্থা ভেংগে পড়ায় পলাশ থানা অনলাইন ক্লাস চালু করা, করুনার মধ্যে যেনো ডেঙ্গগু উপদ্রব বেড়ে যাওয়ায় ফগার মেশিন ক্রয় করে মশা নিধন কর্মসূচি পালন করা থেকে শুরু করে ইত্যাদি কর্মসূচি পালন করেছেন।

পলাশের সাধারন জনগনের পাশে থেকে সবার মুখে হাসি ফুটিয়ে আপনিই প্রমান করেছে রাজনীতি ই সেবা, সেবাই রাজনীতি। সাবেক সফল সাংসদ জনাব আলহাজ কামরুল আশরাফ খান পোটন মহোদয়ের স্বপ্ন হলো একটি আধুনিক, স্বশিক্ষিত, মাদক মুক্ত, সন্ত্রাস জঙ্গীবাদ মুক্ত মডেল এলাকা হিসেবে পলাশকে সারাদেশের জন্য রোল হিসেবে গড়ে তোলা আর সে লক্ষেই তিনি নিরলসভাবে রাত দিন পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।

বলাবাহুল্য যখন আওয়ামীলিগের বড় বড় নেতা সমর্থক রা বিরোধী দল ও বি এন পি জামাতের নির্যাতনে নির্যাতিত হয়ে ঘরবাড়ি ছাড়া ছিল তখন কামরুল আশরাফ খান পোটন ২০০৮ এ এমপি নির্বাচিত হয়ে পলাশের প্রত্যেক ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, পৌরসভায়, প্রতি সেক্টরে আওয়ামী সমর্থকদের কে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করে পলাশের রাজনিতিতে আওয়ামীলিগের এক বিশাল নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছিলেন।

যা স্বরণীয় হয়ে রয়েছে। নরসিংদী পলাশের জননন্দিত উদীয়মান তরুণ ব্যক্তিত্ব আল মুজাহিদ হোসেন তুষার বলেন দেশরতœ নেত্রী-মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুসারী হয়ে এই মহান নেতার একজন কর্মী হিসাবে আমি এবং আমার সেচ্ছাসেবী টিম প্রত্যেক জনগনকে নিজেদের সর্বোচ্চ সেবাটা দেওয়ার চেষ্টা করেছি।

তবে হ্যা এতটুকু বিশ্বাস আছে যে মহান আল্লাাহ ত্বায়ালার ব্রত নিয়ে আমরা এই নেতার জন্য মানব সেবায় নিয়োজিত হয়েছি এবং ত্বা যথাযথ ভাবে পালন করার চেষ্টা করে যাচ্ছি। পলাশের এলাকাবাসী বলেন কামরুল আশরাফ খান পোটন তিনি পলাশের সর্বস্তরের মানুষকে বিভিন্ন সাহায্য সহযোগিতা করে যাচ্ছেন পলাশে এমন একজন নেতার সময়ের দাবি তাই ওনার প্রতি ভালবাসা,দোয়া ও শুভকামনা। আল্লাহর কাছে ওনার সুস্থতা ও দির্ঘায়ু কামনা করছেন তারা ।

এখানে কমেন্ট করুন: