- সারাদেশ

নরসিংদীতে আন্ত:জেলা মোটরসাইকেল চোর চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার, ৪টি মোটরসাইকেল উদ্ধার

মো.শফিকুল ইসলাম(মতি)নিউজ সময়:জেলা গোয়েন্দা পুলিশ অভিযান চালিয়ে আন্ত:জেলা মোটরসাইকেল চোর চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ৪টি মোটরসাইকেল। গ্রেফতারকৃতরা হলো-নরসিংদী সদর উপজেলার করিমপুর গ্রামের হাবিবুল্লাহ সরকারের পুত্র আল রাব্বি (২৫), মনোহরদী উপজেলার কোচেরচর গ্রামের মিলন মিয়ার পুত্র তাপস মিয়া (২১), একই উপজেলার চঙ্গভাঙ্গন্ডা গ্রামের সোনা মিয়ার পুত্র মো: সোলেমান (৩৫), পার্শ্ববতী ব্রাহ্মনবাড়ীয়া জেলার নবীনগর উপজেলার বাড়াইল গ্রামের মেঘা মিয়ার পুত্র মো: শহিদ মিয়া (৪০) ও কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার পুলতাকান্দা গ্রামের মো: মজিবুর রহমানের পুত্র মো: হিসামুর রহমান (২৬)।

রবিবার রাতে নরসিংদী সদর মডেল থানার সাহেপ্রতাব মোড়ে দুটি চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রি করার জন্য নিয়ে আসে চোর চক্রের সদস্যরা। খবর পেয়ে পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীম এর নির্দেশে জেলা গোয়েন্দা শাখার পুলিশ পরিদর্শক মো: আবুল বাশার পিপিএম (বার) এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। এসময় পুলিশ ৪ জনকে দুটি মোটরসাইকেলসহ সেখান থেকে গ্রেফতার করে। পরে ধৃত আসামীদের স্বীকারোক্তি ও তথ্য মতে কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরব উপজেলার কালিপুর থেকে মো: হিসামুর রহমানকে একটি মোটরসাইকেলসহ গ্রেফতার করে এবং ভৈরব থানার কমলপুর এলাকার একটি সিএনজি ফিলিং স্টেশনের সামনে থেকে আরো একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

এ আন্ত:জেলা চোর চক্র নরসিংদী জেলার বিভিন্ন এলাকা হতে মোটরসাইকেল চুরি করে পাশ্ববর্তী কিশোরগঞ্জ ও ব্রাহ্মনবাড়ীয়া জেলার বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে থাকে বলে জানায় পুলিশ।
সোমবার বিকেলে নরসিংদী পুলিশ সুপার কার্যালয চত্বরে এক প্রেস ব্রিফিং-এ নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ইনামুল হক সাগর সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।
চোরদের বিরুদ্ধে নরসিংদীসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক চুরি, ডাকাতি ও মাদক মামলা রয়েছে।

এখানে কমেন্ট করুন: