- সারাদেশ

নরসিংদীতে ডিবি পরিচয়ে ছিনতাইয়ের অভিযোগে ৪ জন গ্রেফপ্তার

মো.শফিকুল ইসলাম(মতি)নিউজ সময়:নরসিংদীতে ডিবি পরিচয়ে মুঠোফোন ও টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। সোমবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ইনামুল হক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। গ্রেপ্তার চারজন হলেন, নরসিংদী সদর উপজেলার চিনিশপুর এলাকার আসাদুজ্জামানের ছেলে মো: রানা (৩৫), ভেলানগর এলাকার মো: সোবহানের ছেলে কামরুল ইসলাম (২৫), বানিয়াছল এলাকার সানু মিয়ার ছেলে রাতুল মিয়া (২৩) ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর থানার বলাকোট এলাকার বাচ্চু মিয়ার ছেলে আলমগীর হোসেন (৩০)।

রোববার(২৪ অক্টোবর) জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ১৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে গাজীপুরের কালীগঞ্জ এলাকার এরশাদ আলী ট্রেন ধরতে নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে যাওয়ার জন্য একটি মিনিবাসে ওঠেন। বাসটি নরসিংদী সদর উপজেলার দক্ষিণ শিলমান্দি এলাকায় পৌঁছালে অজ্ঞাতনামা চারজন ব্যক্তি নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে বাস থেকে এরশাদ আলীকে নামান।এরপর তাঁরা এরশাদকে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে ২ হাজার ৫০০ টাকা, আইফোনসহ দুটি মুঠোফোন ছিনিয়ে নেন।

এ সময় তাঁরা জোর করে তাঁর এটিএম কার্ড ব্যবহার করে ৫ হাজার ৫০০ টাকা উত্তোলন করেন। ঘটনার পর ২০ সেপ্টেম্বর এরশাদ আলী নরসিংদী মডেল থানায় অজ্ঞাতনামা চারজনকে আসামি করে মামলা করেন।পরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ এ মামলার তদন্তভার পায়। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ উপপরিদর্শক (এসআই) নূর আলম তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় আসামিদের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হন।

গতকাল দিনভর অভিযান চালিয়ে ভেলানগর এলাকা থেকে মো. রানা, মাধবদীর শান্তিরবাজার এলাকা থেকে কামরুল ইসলাম, সদর উপজেলার কান্দাপাড়া এলাকা থেকে রাতুল মিয়া ও শিবপুরের কারারচর এলাকা থেকে আলমগীর হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়।নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ইনামুল হক জানান, গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা সংঘবদ্ধভাবে বিভিন্ন এলাকায় চাঁদাবাজি ও অপরাধ কর্মকান্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তাঁদের বিরুদ্ধে এর আগেও বিভিন্ন থানায় মামলা হয়েছে। আজ দুপুরে তাঁদের চারজনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এখানে কমেন্ট করুন: