- সারাদেশ

হবিগঞ্জ বিআরডিবি অফিসের উপপরিচালকের বিরুদ্ধে অনৈতিক সম্পর্ক যৌন নির্যাতনের অভিযোগ

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ বিআরডিবি উপপরিচালক মো.সারোায়ার মাহফুজের বিরুদ্ধে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন ঐ অফিসের ঝাড়–দার এক নারী।তিনি অভিযোগ করেন, অফিস ছুটির পর বিভিন্ন অজুহাতে একা অফিসে রেখে বিয়ের প্রলোবনে জুরপূর্বক তাকে ধর্ষন করেন।

এবাভে চলতে থাকে উপপরিচালকের অপকর্ম। ঐ অফিসে চাকরীর সুবাদে অবৈধ সম্পর্ক গড়েন প্রতিষ্ঠানটির উপপরিচালক মো.সারোয়ার মাহফুজ। ঐ নারী জানায় উপপরিচালক সারোয়ার মাহফুজ সুযোগ পেলেই বিয়ের প্রলোভনে তাকে এশাধিক বার ধর্ষন করে। গত ১৬ অক্টোবর ছুটি নিয়ে বাড়ী যান ঐ নারী, তখন উপপরিচালক ফোন করে অফিসে আসতে বলেন ঐ নারীকে। কিন্তু সন্ধা হওয়ার কারণে আসতে অপরাগতা প্রকাশ করেন ঐ নারী।

তার পর উপপরিচালক গাড়ী ভাড়া দিবেন বলে অফিসে আসতে বলে ঐ নারীকে। সন্ধা ৭ ঘটিকায় অফিসে প্রবেশ করেন ঐ নারী। তখন জেলা দপ্তরের অফিস সহায়ক খায়রুল ইসলামকে ৫শত টাকা দিয়ে চাল ডিম আনার জন্য অফিসের বাইরে পাঠিয়ে দিয়ে অফিসের দরজা লাগিয়ে দেয় এবং ঐ নারীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতন করে। ঐ সময় স্থানীয় একজন অফিসে প্রবেশ করে ঘটনা দেখে ফেলায় অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়।পরে জুর পূর্বক সাদা কাগজে কয়েকটি স্বাক্ষর নিয়ে প্রান নাশের হুমকি দিয়ে অফিস থেকে বের করে দেয় ঐ নারীকে।

পরে ঐ ঘটনা জানা জানি হলে ঐ নারী স্বামী তাকে বাড়ী থেকে তাড়িয়ে দেয়। এর পর বিভিন্ন ভাবে হুমকি দেওয়ায় ঐ নারী গত ২৮ অক্টোবর বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড(বিআরডিবি)র ৫ কাউরান বাজার ঢাকা বরাবারে সারােয়ার মাহফুজের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্ত অভিযোগের বিষয় উপপরিচালক জানেেত পেরে তাকে মেরেফেলার জন্য হুমকি অব্যহত রাখেন বর্তমানে প্রানের ভয়ে বাড়ী ছেড়ে পালিয়ে বেড়ড়াচ্ছে ঐ নারী। এ বিষয়ে জানার জন্য অফিসে গিয়ে অভিযুক্ত মো.সারোায়ার মাহফুজকে অফিসে পাওয়া যাইনি।এ ঘটনায় মামলা করবেন বলেও জানান ঐ নারী।

এখানে কমেন্ট করুন: