- আন্তর্জাতিক

প্রেমিকের সাথে আপত্তিকর অবস্থায় মা: দেখে ফেলায় ৭ বছরের মেয়েকে গলাকেটে হত্যা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: স্বামী কাজে বাইরে থাকায় স্বামীর বন্ধুর সঙ্গে বিবাহবর্হিভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন শশাঙ্কের স্ত্রী। তাদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলেছিল পরকিয়া প্রেমিকার ৭ বছরের মেয়ে। আর সেই জেরেই গলাকেটে হত্যা করা হয় মেয়ে শিশুকে। ভারতের পুরুলিয়ার কেঁদায় এমন ঘটনাই ঘটেছে।

জানা যায়, শশাঙ্কের ৭ বছরের মেয়ে দাদা-দাদির সঙ্গে রাতে ঘুমিয়ে ছিল। রাতের আঁধারে প্রেমিক ঝাড়ু মাহাত শশাঙ্কের ঘরে ঢোকেন। শশাঙ্কের সাত বছরের মেয়েকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে পালানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু ঠিক ওই সময় শিশুটির দাদা-দাদির ঘুম ভেঙে যায়। তারা চিৎকার শুরু করেন। তাদের চিৎকার শুনে এলাকার সিভিক স্বেচ্ছাসেবী ঝাড়ু মাহাতকে ধরে ফেলেন।

পুলিশ জানায়, শশাঙ্কের স্ত্রীর সঙ্গে ঝাড়ু মাহাতকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলে তাদের মেয়ে। পরে ঘর ছেড়ে চলে যান স্ত্রী মিলনি। এ ঘটনার কিছুদিন পরই ঘরে ঢুকে প্রেমিক খুন করল শশাঙ্ক আর মিলানির ৭ বছরের মেয়েকে। ইতোমধ্যে আটক ঝাড়ু মাহাতকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

এখানে কমেন্ট করুন: